অতিরিক্ত ২০০০ চিকিৎসক নিয়োগের প্রক্রিয়া শুরু

করোনা পরিস্থিতিতে চিকিৎসা ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে সরকার অতিরিক্ত চিকিৎসক নিয়োগের চিন্তা-ভাবনা করছে। চিকিৎসকের পদটি প্রথম শ্রেণির হওয়ায় সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি’র) মাধ্যমেই এ নিয়োগ চূড়ান্ত করতে হবে। পিএসসি বলছে, এ মুহূর্তে অতিরিক্ত চিকিৎসক নিয়োগ হলে ৪২তম বিসিএস থেকেই নিতে হবে। কারণ এটি এখনো চলমান, শুধু ভাইভা (মৌখিক পরীক্ষা) বাকি রয়েছে। করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার কারণে ভাইভার তারিখ ঘোষণা করেও তা স্থগিত করতে হয়েছে।

এর আগে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী ডা. জাহিদ মালেক বলেছেন, করোনা রোগীদের চিকিৎসাসেবা দিতে দিতে চিকিৎসকেরাও ক্লান্ত। প্রধানমন্ত্রী প্রতিদিন নির্দেশনা দিচ্ছেন। তার নির্দেশনায় নতুন আরও ৪ হাজার চিকিৎসক এবং ৪ হাজার নার্স নিয়োগ করা হচ্ছে।

এদিকে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি) চেয়ারম্যান সোহরাব হোসাইন বলেন, চিকিৎসক পদটি প্রথম শ্রেণির, তাই অতিরিক্ত নিয়োগ দিতে হলে পিএসসি’র মাধ্যমেই করতে হবে। ৪২তম বিসিএস চলছে। আইন অনুয়ায়ী সরকার এখান থেকে পদ বাড়াতে বা কমাতে পারেন। সে ক্ষেত্রে যদি অতিরিক্ত চিকিৎসক নিয়োগ করা হয় তাহলে ৪২তম বিসিএস থেকে নিতে পারে।

পিএসসি ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, ৪২তম বিশেষ বিসিএস থেকে ২ হাজার চিকিৎসক নিয়োগ করা হবে। এর বাইরেও ২ হাজার অতিরিক্ত চিকিৎসক নিয়োগের কথা চলছে। এ বিষয়ে কার্যক্রম ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে। তবে এ সংক্রান্ত স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের চাহিদা এখনো পিএসসিকে জানানো হয়নি। তবে পিএসসি’র একটি সূত্র বলেছে, তারা অতিরিক্ত ২ হাজার চিকিৎসক নিয়োগের ব্যাপারে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্তের কথা জেনেছেন। চাহিদাপত্র পেলে তারা এ নিয়োগ কার্যক্রম শুরু করবে।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Next News BD Powered By : Code Next IT