আফগানিস্তানের অস্থিরতা ছড়িয়ে পড়ছে মধ্য এশিয়ায়

তালেবানদের ক্রমবর্ধমান হামলায় নাজুক হয়ে পড়া আফগানিস্তানের পরিস্থিতির প্রভাব এখন মধ্য এশিয়াতেও ছড়িয়ে পড়েছে। মধ্য এশিয়ার অনেক দেশেই এখন তালেবানদের নেটওয়ার্ক দেখা যাচ্ছে।

আফগানিস্তানের উত্তরাঞ্চলে জুলাইয়ের শুরুর দিকে তালেবানদের সাম্প্রতিক আক্রমনের সময় সন্ত্রাসীদল তাজিকিস্তানের জামাল আনসারুফাল্লাহ (জেএটি) তালেবানের সঙ্গে যুক্ত হয়ে যুদ্ধ করে। ‘তাজিক তালেবান’ নামে পরিচিত এই তালেবানদের নের্তৃত্বে রয়েছেন মাহদি আরসালুন; তিনি বাদাখসান প্রদেশের পাঁচটি জেলার (খুফ আব,মাইমে,নুসেই,খাওয়াহান এবং শিকি) নেতৃত্ব দিচ্ছেন।

অন্যদিকে পৃথকভাবে পাকিস্তান ইন্টার-সার্ভিসেস ইন্টেলিজেন্স (আইএসআই) পূর্ব আফগানিস্তানে তালেবান অনুপ্রবেশ চালিয়ে যাচ্ছে। পাশাপাশি পাকিস্তানের লস্কর-ই-তৈয়বা (এলইটি), জয়েশ-ই-মোহম্মদ (জেইএম) এবং হিজবুল মোজাহিদিন (এইচইউএম) তাদের সহযোগি দলগুলোয় সক্রিয়ভাবে সদস্য যুক্ত করছে। কোয়েতা থেকে প্রায় ৫০০ জন নতুন ক্যাডার আফগানিস্তানে প্রবেশ করেছে এবং পাকিস্তান আইএসআইএর সঙ্গে যুক্ত ৫০ জন সন্ত্রাসী বাজোয়ার থেকে কুনারে প্রবেশ করেছে।

তালেবানরা আফগানিস্তানের প্রতিরক্ষা ও নিরাপত্তা বাহিনীর (এএনডিএসএফ) থেকে জব্দ করা বিভিন্ন ধরনের অস্ত্র, যন্ত্রপাতি এবং যানবাহন ( সশস্ত্র যানবাহনসহ) এবং যোগাযোগের উপকরণগুলো অব্যাহতভাবে পাকিস্তানে স্থানান্তর করছে।

এদিকে সম্প্রতি তাজিকিস্তান সফরে এসে রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী সার্গেই শুইগো আফগানিস্তানের নাজুক পরিস্থিতি এবং দেশটিতে আইএস জঙ্গীদের তৎপরতা বৃদ্ধি নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তিনি জানান, তাজিকিস্তানে রুশ সামরিক ঘাটির যুদ্ধ করার সক্ষমতা আরো বৃদ্ধি করবে মস্কো। পাশাপাশি তাজিকিস্তানের সেনাবাহিকে প্রশিক্ষণ দিবে তারা। সূত্র: এএনআই

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Next News BD Powered By : Code Next IT