প্রচণ্ড দাবদাহে কানাডার ভ্যানকুভারে ৬৯ জনের মৃত্যু

কানাডার ভ্যানকুভারে তীব্র তাপদাহে ৬৯ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির পুলিশ বিভাগ।

নিহতদের বেশির ভাগই বয়োজ্যেষ্ঠ বলে জানা গেছে। কানাডার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে রেকর্ড মাত্রায় দাবদাহ চলছে। খবর আরব নিউজের।

পুলিশের তথ্য মতে, ব্রিটিশ কলাম্বিয়া অঙ্গরাজ্যের ভ্যানকুভারের বার্নাবি ও সারে শহরতলীতেই বেশি মানুষ মারা গেছে। এদের বেশির ভাগই বৃদ্ধ ছিলেন।

সোমবার থেকে মঙ্গলবার পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় প্রচণ্ড গরমে অসুস্থ হয়ে ওই ৬৯ জনের মৃত্যু হয়।

টানা তৃতীয় দিনের মতো কানাডায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। মঙ্গলবার ব্রিটিশ কলাম্বিয়ার লায়টনে ৪৯ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়।

এ ছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন এবং ওরেগন অঙ্গরাজ্যে ১৯৪০ সাল থেকে তাপমাত্রা রেকর্ড রাখা শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে গত কয়েকদিনে।

অরেগনের পোর্টল্যান্ডে ৪৬ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং ওয়াশিংটনের সিয়াটলে ৪২ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় গত রোববার। বিদ্যুতের তার গলে যাওয়ার মতো তাপ দেখা দেওয়ায় পোর্টল্যান্ড স্ট্রিট কার সেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়।

ভ্যানকুভারের বার্নাবি অঞ্চলে দায়িত্বরত পুলিশ কর্মকর্তা মাইক কালাঞ্জ বলেন, সবাই প্রতিবেশীদের দিকে খেয়াল রাখুন, পরিবারের সদস্যদের খেয়াল রাখুন। বয়োজ্যেষ্ঠদের যাদের চেনেন, তাদের খোঁজ নিন। যারা শারীরিকভাবে দুর্বল, তাদের জন্য এই আবহাওয়া ভয়ানক। বিশেষ করে বয়স্কদের ক্ষেত্রে।

কানাডার ইতিহাসে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড হওয়া গ্রাম লায়টনের বাসিন্দা মেগান ফন্ড্রিচ বলেন, প্রচণ্ড দাবদাহে বাইরে বের হওয়া একেবারেই অসম্ভব। অসহ্য আবহাওয়া। আমাদের এলাকা শুষ্ক থাকে। কিন্তু ৩০ ডিগ্রি আর ৪৭ ডিগ্রির তফাৎটা অনেক বেশি।

নিজের মেয়েকে তিনি ব্রিটিশ কলাম্বিয়ার অন্য অঞ্চলে পাঠিয়ে দিয়েছেন যেখানে তুলনামূলক তাপমাত্রা কিছুটা কম।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Next News BD Powered By : Code Next IT