ফিলিস্তিনি শিশুর বুক ঝাঁজরা করে দিল ইসরাইলি সেনারা

ইসরাইলি সেনারা অধিকৃত পশ্চিমতীরে ১২ বছরের এক ফিলিস্তিনি শিশুকে গুলি করে হত্যা করেছে।

ফিলিস্তিনের কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে এ তথ্য দিয়েছে রয়টার্স। খবরে বলা হয়— বুধবার গুলির সময় শিশুটি গাড়িতে তার বাবার সঙ্গে ছিল।

পশ্চিমতীরের দক্ষিণে বেইত উম্মার গ্রামের কাছে গাড়িতে থাকা শিশুটির বুকে গুলি করে ঝাঁজরা করে দেওয়া হয় বলে জানিয়েছে ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। কাছের হাসপাতালে নেওয়ার কয়েক ঘণ্টা পর তার মৃত্যু হয়।

ইসরাইলের সামরিক বাহিনী দাবি করেছে— ‘সন্দেহজনক কর্মকাণ্ডে’ জড়িত ওই গাড়ির চাকা লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে তাদের এক সেনাসদস্য। তবে ইসরাইলের এই বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করেছে ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষ।

ইসরাইলের সামরিক বাহিনীর বিবৃতিতে বলা হয়েছে— ঘটনাটি খতিয়ে দেখছেন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা।

ইসরাইলের সামরিক বাহিনী জানিয়েছে, ঘটনাস্থলে থাকা সেনারা দেখতে পান একটি গাড়ি ওই এলাকায় প্রবেশ করেছে এবং দুজন গাড়ি থেকে বের হয়ে মাটি খুঁড়ে এর পর আবার গাড়িতে ফিরে যায়। সেনারা ওই স্থানে গিয়ে দুটি ব্যাগ পায়, যার একটিতে এক নবজাতকের মৃতদেহ ছিল।

বেইত উম্মারের মেয়র নাসরি সাবারনেহ ফিলিস্তিনের সরকারি সংবাদ সংস্থা ওয়াফাকে জানান, বুধবার সকালের দিকে গ্রামের একটি পরিবার মৃত নবজাতককে ওই এলাকায় দাফন করেছিল। দাফনের ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই ইসরাইলি সেনারা সেখানে পৌঁছায় এবং নবজাতকের মৃতদেহ তুলে ফেলে।

তবে ইসরাইলের দাবি— তাদের সেনারা ধারণা করেছিল সকালে যে গাড়িটি দাফনের সময় দেখা গিয়েছিল, বিকালে গুলি করা গাড়িই সেটি। সেনারা প্রথমে নিয়ম অনুসরণ করে চিৎকার করে ও ফাঁকা গুলি ছুড়ে গাড়িটি থামানোর চেষ্টা করে, পরে গাড়ির চাকা লক্ষ্য করে গুলি চালায়।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Next News BD Powered By : Code Next IT