বিশ্বকাপ ফাইনাল: অস্ট্রেলিয়ার আধিপত্য নাকি নিউজিল্যান্ডের প্রতিশোধ

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসরের ফাইনালে মুখোমুখি হবে তাসমান সাগরপাড়ের দুই প্রতিবেশী দেশ অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড। আজ রোববার (১৪ নভেম্বর) দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় শুরু হবে এই ম্যাচ।

এদিকে দুই দেশই মুখিয়ে আছে প্রথমবারে মতো নিজেদের ঘরে টি-টোয়েন্টি ট্রফি তুলতে। আগের ছয় আসরে কোনবারই শিরোপার স্বাদ নিতে পারেনি এবারের দুই ফাইনালিষ্ট। তাই প্রথমবারের মত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের শিরোপা জিততে মরিয়া নিউজিল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া দুই দলই।

দ্বিতীয়বারের মত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলতে নামবে অস্ট্রেলিয়া। এর আগে ২০১০ সালে ফাইনালে উঠলেও, শিরোপার স্বাদ নিতে পারেনি অজিরা। ইংল্যান্ডের কাছে ৭ উইকেটে ম্যাচ হারে অস্ট্রেলিয়া। এরপর আর ফাইনালের টিকিট পায়নি অজিরা। অন্যদিকে কিউইদের সর্বোচ্চ সাফল্য সেমিফাইনাল।

তবে জয়ের বিকল্প দেখছেন না কেন ব্লাকক্যাপসরা। এবারের বিশ্বকাপে কিউইরা অনেকটা প্রতিশোধের আগুনেই জ্বলছে মনে হচ্ছে। সেদিক থেকে চিন্তা করলে সম্ভাবনার জায়গাটাও বেশি তাদের।

১৯৯৬ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল দিয়ে বিশ্বকাপে দেখা দুই প্রতিবেশী অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের। সেবার ৬ উইকেটে জিতেছিল অজিরা। এর ১০ বছর পর ২০০৬ সালের চ্যাম্পিয়নস ট্রফি সেমিফাইনালে ৩৪ রানে হেরে যায় কিউইরা। একই প্রতিযোগিতার ফাইনালে ২০০৯ সালে দেখা হয়েছিল দুই দলের। সেখানেও অজিদের ৬ উইকেটের জয়। আর সবশেষ ২০১৫ ওয়ানডে বিশ্বকাপের ফাইনালে ৭ উইকেটে হার নিয়ে মাঠ ছাড়ে ব্লাকক্যাপসরা।

২০১৫ সালে প্রথম কোনো ফরম্যাটের বিশ্বকাপ ফাইনালে দাপট দেখিয়ে উঠলেও বেদনাবিধুর হয় নিউজিল্যান্ডের হৃদয়। তবে আগমণী বার্তা যেন দিয়ে রেখেছিল কিউইরা। ২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপে টানা দ্বিতীয় ফাইনালে উঠেছিল। এবার যেন হৃদয়ে রক্তক্ষরণ। ফাইনালে ইংল্যান্ডের কাছে সেই হারের যন্ত্রণা এবার নিউজিল্যান্ড লাঘব করেছে সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৫ উইকেটের দারুণ জয়ে। বদলা নিয়ে প্রথমবার ওঠে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে। প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া। ইংল্যান্ডের মতো তারাও কি নিউজিল্যান্ডের প্রতিশোধের আগুনে পুড়বে? নাকি বিশ্বমঞ্চে বজায় থাকবে অস্ট্রেলিয়ান আধিপত্য?

অনেকের মতে, এই মুহূর্তে সব ফরম্যাটের সেরা দল এই ব্ল্যাকক্যাপরা। তাই আপাতদৃষ্টিতে অস্ট্রেলিয়ার আধিপত্য থামিয়ে প্রতিশোধ নেয়ার মোক্ষম সুযোগ নিউজিল্যান্ডের। যদিও ছেড়ে কথা বলবে না অস্ট্রেলিয়াও।

তবে প্রশ্নের উত্তর পেতে অপেক্ষ করতে হবে আরও কিছু সময়। তারপরেই নির্ধারণ হবে কে হবে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Next News BD Powered By : Code Next IT