বিশ্বরেকর্ড গড়ে সোনা জিতলেন দক্ষিণ আফ্রিকান সাঁতারু

টোকিও অলিম্পিকে দক্ষিণ আফ্রিকাকে প্রথম সোনা এনে দিয়েছেন সাঁতারু তাতানা শোয়েনমেকার। সোনা জিততে শোয়েনমেকার গড়েছেন বিশ্বরেকর্ডও। অনন্য এই কীর্তি গড়ার পর আবেগ ধরে রাখতে পারেননি দক্ষিণ আফ্রিকান এই সাঁতারু। পুলেই কেঁদেছেন ২৪ বছর বয়সী শোয়েনমেকার।

মেয়েদের ২০০ মিটার ব্রেস্ট স্ট্রোকের এত দিন বিশ্বরেকর্ড ছিল ২ মিনিট ১৯.১১ সেকেন্ড। বার্সেলোনায় ২০১৩ বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপে এই রেকর্ড গড়েছিলেন ডেনমার্কের রিকে মোলের পেডেরসেন। ৮ বছর পর সেটি ভেঙে টোকিও অলিম্পিকে নতুন বিশ্বরেকর্ড গড়েছেন শোয়েনমেকার।

রেকর্ড গড়ার পর শোয়েনমেকার নিজেকেই বিশ্বাস করতে পারছিলেন না। সোনা জয়ের পর বলেছেন, ‘প্রথমে স্কোর বোর্ডে তাকিয়ে আমার টাইমিং দেখে বিশ্বাসই করতে পারছিলাম না। ২ মিনিট ১৯.১১ সেকেন্ড অনেক দিন ধরে বিশ্বরেকর্ড ছিল। আমি সত্যিই কৃতজ্ঞ।’

হিটেই বিশ্বরেকর্ড ভাঙার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন শোয়েনমেকার। ফাইনালে ২ মিনিট ১৮.৯৫ সেকেন্ডে সাঁতার শেষ করে সোনার পদক জিতে গড়ে ফেলেন বিশ্বরেকর্ড। তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী যুক্তরাষ্ট্রের লিলি কিং ২ মিনিট ১৯.৯২ সেকেন্ডে সাঁতার শেষ করে রৌপ্য জিতেছেন। ২ মিনিট ২০.৮৪ সেকেন্ড সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ জিতেছেন অ্যানি লেজর।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Next News BD Powered By : Code Next IT