সিটিকে হারিয়ে ইউরোপ চ্যাম্পিয়ন চেলসি

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়নদের হতাশ করে দ্বিতীয়বারের মতো উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয় করল চেলসি। শনিবার রাতে পোর্তোর এস্তাদিও ডো ড্র্যাগো স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত অল ইংলিশ ফাইনালে ম্যানচেস্টার সিটিকে ১-০ ব্যবধানে হারিয়ে শিরোপা ঘরে তুলল অল ব্লুজরা।

চেলসির হয়ে জয় সূচক গোলটি করেন কাই হাভার্টজ। ৪২ মিনিটের মাথায় গোল করে দলকে এগিয়ে দেন তিনি। আক্রমণ শুরু হয় গোলরক্ষক এডোয়ার্ড মেন্ডির পা থেকে। হাভার্টজকে গোলের পাসটি বাড়িয়েছিলেন মেসন মাউন্ট। চেলসির সব চেয়ে দামি ফুটবলার হাভার্টজ সেই বল নিয়ে এগিয়ে যান গোলের দিকে। সিটির গোলরক্ষককে টপকে ফাঁকা গোলে বল ঠেলে দেন তিনি।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এটাই তাঁর প্রথম গোল। সেই গোলেই চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতে নেয় চেলসি। প্রশিক্ষক টমাস টুখেল অবশ্য গতবার পিএসজিকে ফাইনালে তুলেও হেরে যান। তবে এবার হাসি মুখেই মাঠ ছাড়লেন তিনি। অন্যদিকে এবারও হতাশ হয়ে ফিরতে হলো পেপ গার্দিওলাকে। প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে হারলেন এই স্প্যানিশ কোচ।

যদিও চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ট্রফি আগেও জিতেছেন গার্দিওলা। তাও ১০ বছর আগে বার্সেলোনার হয়ে। এই স্প্যানিশ কোচ তাই এবার খুব করে চাইছিলেন সিটিকে প্রথমবারের মতো ট্রফি এনে দেবেন। কিন্তু ‘অল ইংলিশ’ ফাইনালে তা হতে দিলো না চেলসি। টমাস টুখেলের ট্যাকটিসের কাছে হেরেই গেলেন গার্দিওলা। সেইসঙ্গে ২০১২ সালের পর দ্বিতীয়বারে মতো ইউরোপ সেরার মুকুট জিতলো চেলসি।

ম্যান সিটি এবার ইংলিশ লিগ ছাড়াও ট্রফি জিতেছে লিগ ওয়ানের। বিপরীতে চেলসি লিগে হয়েছে চতুর্থ। মাঝে দলটির দায়িত্ব নিয়ে জাদু দেখাতে থাকেন টুখেল। খারাপ অবস্থা থেকে দলকে টেনে তুলে এইপর্যায়ে নিয়ে আসেন। ইংলিশ লিগ চ্যাম্পিয়ন ম্যান সিটিকে আগেও হারিয়েছেন। এবারও চ্যাম্পিয়ন্স লিগেও তাদের জিততে দেননি।

গার্দিওলার ট্যাকটিসের বিপরীতে টুখেল নিজের কারিশমা দেখান। ম্যাচের শেষ পর্যন্ত তা ধরে রেখে ট্রফি জয়ের উল্লাসে মাতিয়েছেন পোর্তোর দ্রাগাও স্টেডিয়ামে উপস্থিত হওয়া ১২ হাজার দর্শককে।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।